Home ঈদ সংখ্যা ২০১৭ আশ্রমমৃগ > দীর্ঘকবিতা >> অনুপম মণ্ডল

আশ্রমমৃগ > দীর্ঘকবিতা >> অনুপম মণ্ডল

প্রকাশঃ June 24, 2017

আশ্রমমৃগ > দীর্ঘকবিতা >> অনুপম মণ্ডল
0
0

আশ্রমমৃগ

সংকল্প হতে আরেকবার উৎপন্ন হও তুমি

বিমূঢ় মনটাকে টেনে তুলতে

তুলতে বললাম তাকে

তার বুদ্ধি নির্মল; চিত্ত তৃপ্ত

ছোট ছোট মাটির ঢেলা পেরিয়ে, বাতাস বয়ে চলেছে

‘কে শরণ যথার্থ নিতে পারে’

দেখি তার চক্ষুর কাতর দৃষ্টি আজ ছিঁড়ে পড়ছে

শান্ত মেঘখণ্ডের মতোই উড়ছে তার ছিন্ন বসন

*

অনন্তর ঘাসের শোভা, ঐ পুনরুত্থিত তরঙ্গরাশি আমি মেঘে

এক মুঠো অন্নে তাকে আহ্বান করি

দীর্ঘ ঝাউয়ের মাথা আরো দূর বনান্তে মিলিয়ে গিয়েছে

জলে, জলের কিনার ঘেঁষে বটের গভীর ছায়া, দুএকটি বাতাবিলেবুর পাতা

দূরে বসে দেখি, সেই পা

ধুলো মুছিয়ে দিচ্ছে কেউ

 

সজিনার ডালখানি, হাওয়ায়, নেমে এসেছে মৃত্তিকার কাছাকাছি

আর একটি দুটি করে তার হলুদ পাতা, দিনমান, ঝরিয়ে চলেছে

*

শ্লোকের একটি চরণ ধরে বেরিয়ে এলাম

চক্ষু নিদ্রাহীন, কণ্ঠ আনত

যেন ইহার পর আর জন্ম নাই

পূর্বেও ছিল না

বহুদূর হতে কারো ক্ষীণ স্বর

আরো ক্ষীণ হয়ে আসছে

 

যেন বধুকে প্রদক্ষিণ করছে বর

একটি তুচ্ছ প্রশ্বাস ঐ তরঙ্গের কাছে

গভীরভাবে সমাহীত

*

যজ্ঞ সমাপ্তির পর

ঐ ঈশানকে মেঘ-গম্ভীর স্বরে

কেউ বলে চলেছেন

প্রাণ নিষ্ক্রান্ত তথাপি

এক হীন আত্মাকে আরো আস্তে

নিজেরই দেহমধ্যে বহন করে চলেছি যেন
সে ধুলোয়-অখণ্ড অগ্নিতে, রক্ত মেঘের মুকুট

লুটিয়ে পড়েছে। মহুয়া বনের ধারে

বুঝি কার বেলা পড়ে এলো

*

দীর্ঘ ঘাসের মাথায়, যখন

সূর্য উঠেছে, তখনও পথ হেঁটে চলেছি

দেহ আবরণ মাত্র

আগুনের হল্কার মতো তপ্ত এই আকাশ; অগ্নিবর্ষী

একটা পাখির পালক ধুলোয়, মৃত্তিকায় ঝরে পড়ে

জল ও তীর ভূমির মধ্য দিয়ে

ঐ সুবৃহৎ বৃক্ষতলের নিবিড় শান্তি

অনুদ্বিগ্ন, নিস্পৃহ, ধীর জীবন-যাত্রা ছেড়ে, আর,

পাখিটি আকাশপথে উড়ে যায়

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন

লেখাগুলো সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুনঃ

LEAVE YOUR COMMENT

Your email address will not be published. Required fields are marked *

hijal
Close