Home কবিতা মামুন মুস্তাফা >> কবিতাগুচ্ছ
0

মামুন মুস্তাফা >> কবিতাগুচ্ছ

প্রকাশঃ September 6, 2018

মামুন মুস্তাফা >> কবিতাগুচ্ছ
0
0

মামুন মুস্তাফা >> কবিতাগুচ্ছ

 
নারী, এই চৈত্রে

স্বর্গ থেকে নেমে যাচ্ছে যে মেয়েরা
তাদের আকীর্ণ আাঁচল গুটিয়ে নিচ্ছে
এই চৈত্র। এই মার্চে উঠেছিল তবু
সেই নগ্নিকা শিখা। সকল বৃক্ষ থেকে
ঝরে গেছে সূর্যাস্তের ছায়া।

এরপর আমরাও নেমে গেছি টিপ টিপ পায়ে,
দারিদ্র্যবাড়ির লেকে তখন গুটিকয়েক মৌনতার
হাঁস পরাকীর্ণ নারীদের গল্প বলে।
চৈত্রের দহন সাঁঝে ঝুলে থাকে সব ঈশ্বরীপুরুষ;
পুরুষের হৃদয় হতে অন্তর্গত নারী উঁকি দেয়;
নরকের জানালা কী বহু দূর? ভাঙে পুরুষসত্তা-

এনেছে কী নারী তবে স্বর্গের সহবাস, নরকের জ্বালা?

 

ইস্তফাপত্র

হঠাৎ লক্ষ করি চশমা নেই,
হরিণেরা দৌড়চ্ছে বাদাড় পায়ে
দ্রুত চলতে গিয়ে দেখি চলৎশক্তিহীন;
চোখের সামনে নেমে এলো
তুলোর মতো পেঁচানো অন্ধকার।

বাতাসে পোড়া গন্ধ।
জেগে উঠছে রসুইঘর।
ঘুমোবার রাত ফুরোলো এবার,
নারী ক্রমাগত রক্ষিতা হয়ে ওঠে,
এ শহর যেন কাঁচের ঘর!

সকল নিরাময় ভাঙে ওই বিষপাত্র
পূর্বপুরুষের ঐশ্বর্য নিয়ে
কবিতা সমাপ্ত হলে
ইস্তফাপত্রে স্বাক্ষর করে নগ্নিকা সময়।

 
রক্তচিহ্ন

বিষাদের ছায়া থেমে থাকে ঘাসে
ভাঙা ঘুঙুরের নাচে বাঁধা চৈত্রসংক্রান্তি
এখন বৈশাখ ভীড় করে গাছেদের মাথার ওপর;
জ্বলজ্বল রোদে হারায় রূপসীমন্ত্র, ঘুমের দুপুর।

বাইরে কাটা তরমুজের ফালিতে জীবনের সমান
চুমুক- বিষবৃক্ষের নীচে দেখো মনোবিকলন।

চাতুরিছলে ছিনতাই হয় মানবহৃদয়
পাঠশালায় পড়া নীতিকথা, হাজিরাখাতা-
তবু পথ হাঁটে মন্ত্রগাঢ় যাপিত জীবন
কবিতার উৎপ্রেক্ষায় জাগে সাধকের রক্তচিহ্ন।

 
কুরুক্ষেত্র

বিন্দুগুলো সরে যাচ্ছে
চোখ তারার মতো কাঁপছে

মানুষের বোধির জগত আজ ম্রিয়মান
লক্ষবিন্দু থেকে ক্রমশ ক্রমাবনতি

যেমন শ্যাওলা ঢাকা সমস্ত ভূগোল
মানচিত্রে কম্পাসে গাঁথা পৃথিবী

পাদটীকাময় কবিতার ঘরগেরস্থি
শিয়রের পাশে কুরুক্ষেত্র, দ্বিতীয় গন্ধম

 
ভুল দিয়ে রচনা

আলোগুলো সরে সরে যায়
পথ, পথের সরণি খুলে নিয়ে যাচ্ছে কেউ।

সদরে পড়ে থাকে ভাসানযাত্রা
এবার পিতামহের কবরে ঘুঙুরনাচ,
প্রার্থনাসমূহ ভেঙে পড়ে বাতিল মন্দিরে।

পুরনো গৃহ একান্ত বিদিশায় ত্রস্ত,
ভুল দিয়ে গড়া কবিতাগুলো এখন
সতীর্থের টেবিলে। ঘুণে জমা দ্রাঘিমা
তাকে উর্ধ্বে তুলে ধরে-
মাঘ ও মেঘের আরশীতে।

আঙুলে নিভে আসে কবিতার পরাবাস্তব
মায়ালোক, সাতরঙা চাঁদের সন্ত্রাস।

ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন

লেখাগুলো সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুনঃ

LEAVE YOUR COMMENT

Your email address will not be published. Required fields are marked *

hijal
Close